Home

বিষ কমলেও ঢিলে দিতে নারাজ পরিবেশ দফতর

এই সময় ডিজিটাল ডেস্ক: বাতাসে বিষের নিরিখে দিল্লিকে বুধবার ছাপিয়ে গিয়েছিল কলকাতা। শহরের বিভিন্ন জায়গায় এয়ার কোয়ালিটি ইনডেক্স বা বাতাসের গুণমান সূচক ৪০০ ছাড়িয়েছিল। যা স্বাস্থ্যের পক্ষে খুবই ক্ষতি কর। তবে বৃহস্পতিবার তা কমেছে। দিল্লির ছবি আবার এর উল্টো। রাজধানীতে বুধবার ছিল বায়ুদূষণ কম, বৃহস্পতিতে বেশি। কলকাতায় বায়ুদূষণের মাত্রা কমায় পরিবেশ দপ্তর ও পশ্চিমবঙ্গ দূষণ নিয়ন্ত্রণ পর্ষদের কর্তারা স্বস্তিতে। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ‘হাওয়ার গতি বাড়ায় পরিস্থিতির উন্নতি হয়েছে।’ হাওয়া অফিস ইতিমধ্যেই শহরে কয়েক দিনের মধ্যেই বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনার কথা জানিয়েছে রয়েছে। তাতে দূষণের মাত্রা আরও কমবে। পরিবেশমন্ত্রী সৌমেন মহাপাত্রের দাবি, ‘দিল্লির তুলনায় কলকাতার পরিস্থিতি অনেক ভালো। দূষণ ঠেকাতে একাধিক পদক্ষেপ করছি। তাতে কয়েক মাসের মধ্যে দূষণের মাত্রা আরও কমবে।’ কেন্দ্রীয় দূষণ নিয়ন্ত্রণ পর্ষদের তথ্য অনুযায়ী, বুধবার বালিগঞ্জে বাতাসের গুণমান সূচক ছিল ৩৫৫। বৃহস্পতিবার তা নেমে এসেছে ২৪৬-এ। ফোর্ট উইলিয়মে ২৪ ঘণ্টা আগে বাতাসের গুণমান সূচক ছিল ৩৭২, যা এ দিন নেমে হয়েছে ২৭৯। সার্বিক ভাবে বৃহস্পতিবার এটাই শহরের দূষণ-চিত্র। পরিবেশ বিশেষজ্ঞরা বলছেন, বাতাসের গুণমান সূচক ৩০০-র উপরে থাকলে তা স্বাস্থ্যের পক্ষে খারাপ। ৪০০-র উপরে শিশু ও প্রবীণদের পক্ষে ভয়াবহ। পরিবেশমন্ত্রীর মতে, সকালের দিকেই শহরে দূষণের মাত্রা বাড়ছে। সমস্যা মেটাতে অন্যতম পদক্ষেপ হিসেবে পরিবেশ দপ্তর ফুটপাথের খাবারের স্টলের দোকানিদের কয়লার উনুনের পরিবর্তে এলপিজি গ্যাসের ওভেন-সিলিন্ডার দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। ইতিমধ্যেই বিধাননগরে ৭০০ জনকে রান্নান গ্যাস, ওভেন দেওয়া হয়েছে। পরিবেশমন্ত্রী জানান, কলকাতার বায়ুদূষণের আরও একটা বড় কারণ, নির্মীয়মাণ বহুতল। সৌমেন মহাপাত্র বলেন, ‘এই সব বাড়ি তৈরির সময়ে চারপাশ ঢেকে রেখে যেন কাজ হয়, সেটা নিশ্চিত করতে পুরসভাকে সঙ্গে নিয়ে আমরা কাজ করছি।’ মন্ত্রীর বক্তব্য, যাঁরা নিয়ম মানছেন না, তাঁদের বিরুদ্ধে প্রশাসন ব্যবস্থাও নিচ্ছে। রাস্তার ধুলো থেকেও বাতাসে দূষণ ছড়ায় বলে দীর্ঘদিন থেকেই সরব পরিবেশ বিশেষজ্ঞরা। এই সমস্যা মেটাতে পরিবেশ দপ্তরের পক্ষ থেকে পুরসভাগুলিকে রাস্তা ধোওয়ার জন্য স্প্রিঙ্কলার দেওয়া হচ্ছে বলে মন্ত্রী জানিয়েছেন। কয়েক দিনের মধ্যেই এই সরঞ্জাম বিতরণ করা হবে। পরিবেশ বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন, সোমবার থেকেই কলকাতা, সল্টলেক ও হাওড়ায় বাতাসের দূষণমাত্রা বাড়ছিল। আর বুধবার সেটা অনেকটাই বেড়ে যায়। বৃহস্পতিবার ছবিটা বদলালেও এই ব্যাপারে নিশ্চিন্ত না-হয়ে দূষণ ঠেকাতে এখন থেকেই পরিবেশ দপ্তরের আরও পদক্ষেপ করা উচিত বলে বিশেষজ্ঞদের অভিমত। পরিবেশবিজ্ঞানী স্বাতী নন্দী চক্রবর্তী বলছেন, ‘দূষণ ঠেকাতে সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন, সাধারণ সচেতনতা বৃদ্ধির। কী করলে দূষণ ছড়াবে আর কী করলে নয়, সেটা আমজনতার কাছে ঠিক ভাবে তুলে ধরা না-গেলে পরিস্থিতির উন্নতি সম্ভব নয়।’ সচেতনতা বাড়ানো যে প্রয়োজন, তা মানছেন পরিবেশমন্ত্রীও। সৌমেন বলছেন, বিভিন্ন অনুষ্ঠানের মধ্যে দিয়েও পরিবেশ সম্পর্কে সচেতনতা বাড়ানোর কাজ হচ্ছে। তবে আমজনতাকে আরও এগিয়ে আসতে হবে।’



Credit eisamay

bangla news,bangla news today,latest bangla news,bangla news 24,all bangla news,bangla news live,bd news,bangla news update,news bangla,bangladesh news today,news,bangladeshi news,bangladesh tv news,news live,bangla tv news,breaking news,etv bangla news,bangla news 2019,bangla live news,today bangla news,atn baagla news,www bangla news today,24 ghanta bangla news,bangla latest news update,news bangla,bangla news,atn bangla khobor,bangla news today,all bangla channel live,abp ananda bangla khabar,latest bangla news,bangla,ajker khobor,bangla tv,atn bangla songbad,all bangla tv,tv atn bangla,west bengal,bangla tv live,live bangla channel,etv bangla news,etv news bangla,live gtv bangla,bd tv atn bangla,bangla all news,bangla news live,bangla live news,live news bangla,banlgla video news,bangla news today,latest bangla news,bangla news,today bangla news,news bangla,bangla news update,bangla news live,bangla news video,bd news,today news bangla,news,bangla news 24,bd news today,bangladesh news,bangla forex news site,news portal website,news live,bd news bangla,news18 bangla live,modi news bangla,news18 bangla,india news bangla,world news bangla,free bangla blog site,latest news bangla,

আমাদের এই ব্লগে আপনি ও লিখতে পারবেন । এর জন্য আপনি আপনার লিখা আমাদেরকে ইমেইল করতে পারেন । অথবা আমাদের একজন সদস্য হয়ে ও পোস্ট করতে পারবেন । আমাদের ওয়েবসাইট এর সদস্য হতে চাইলে ভিসিট করুন । আপ্বনার লিখা অবস্যয় শিক্ষনীয় হতে হবে । আমাদের ইমেইল ঠিকানা support@mrlaboratory.com
Share This

0 Response to "বিষ কমলেও ঢিলে দিতে নারাজ পরিবেশ দফতর"

Post a Comment

এই পোষ্ট টি কেমন লেগেছে আপনার মুল্যবান মতামত লিখুন ।

Popular Posts