-->

OTG ক্যাবল এর বিস্তারিত

    OTG এর বিস্তারিত

    OTG এর বিস্তারিত


    OTG এর বিস্তারিত; OTG কি ? OTG সব্দের পূর্ণ রুপ হল “On The Go”. দুটি OTG সাপোর্টেড ডিভাইসের একটিকে আরেকটির সাথে যুক্ত করে আপনি অনেক ধরণের কাজ করতে পারবেন। যেমন আমরা সাধারণত পিসিকে ইউএসবি হোস্ট হিসেবে ব্যবহার করে এর সাথে বিভিন্ন ফ্ল্যাশ ড্রাইভ, স্মার্টফোন ইত্যাদি কানেক্ট করে থাকি। সময়ের সাথে সাথে OTG সাপোর্টেড ডিভাইসের সংখ্যা বাড়ছে। মূলত সেই কারণেই এখন অনেক কাজ পিসি ছাড়াই করা যায়। যেমন OTG সাপোর্ট থাকার কারণে আপনি পিসি ছাড়াই আপনার ক্যামেরার ফটোগুলো খুব সহজে প্রিন্টারে পাঠাতে পারবেন। এছাড়া কী- বোর্ড সহ অন্যান্য ইউএসবি স্টিক এখন খুব সহজেই স্মার্টফোনের সাথে যুক্ত করা যায়। যেহেতু এই OTG সুবিধাটির প্রয়োজনীয়তা অনেক, তাই ডিভাইস কেনার সময় ডিভাইস স্পেকস দেখে আপনি নিশ্চিত হয়ে নিতে পারেন যে ডিভাইসটিতে OTG সাপোর্ট আছে কিনা। কিভাবে OTG ব্যবহার করবেন? হার্ডওয়্যার এর উপর ভিত্তি করে OTG এর বিভিন্ন ব্যবহার রয়েছে। যেমন স্মার্টফোন এবং ট্যাবলেটের ক্ষেত্রে OTG সাপোর্ট থাকলে আপনি আপনার ডিভাইসের সাথে কী-বোর্ড,মাউস,হার্ডড্রাইভ এবং ফ্ল্যাশ ড্রাইভ ইত্যাদি যুক্ত করতে পারবেন। কিন্তু কথা হল সব স্মার্টফোন বা ট্যাবলেট কিন্তু OTG সাপোর্টেড নয়। সেক্ষেত্রে আপনার ডিভাইসটি OTG সাপোর্টেড কিনা তা জানার জন্য ডিভাইসটির স্পেসিফিকেশন চেক করাই যথেষ্ট। এছাড়া আপনি নিচের লিংকে দেয়া অ্যাপের মাধ্যমেও আপনার ডিভাইসের OTG কম্প্যাবিলিটি সম্পর্কে জানতে পারবেন। শুধুমাত্র OTG সাপোর্ট থাকলেই চলবে না। এই সুবিধা ব্যবহার করার জন্য আপনার প্রয়োজন হবে একটি ভাল OTG ক্যাবলের। বর্তমানে বিভিন্ন স্মার্টফোন এক্সেসোরিস দোকানে এই OTG ক্যাবল পাওয়া যায়। এখন আরেকটি বিষয় যা মনে রাখতে হবে তা হল আপনি যদি আপনার স্মার্টফোন বা ট্যাবলেটের সাথে কোন প্রকার স্টোরেজ ডিভাইস যেমন হার্ডড্রাইভ বা ফ্ল্যাশড্রাইভ যুক্ত করতে চান তাহলে আপনাকে নিচের অ্যাপ গুলো ব্যবহার করতে হতে পারে… OTG ব্যবহার করে আপনি যা যা করতে পারবেন- USB OTG এর সাহায্যে আপনি আপনার স্মার্টফোন বা ট্যাবলেটের সাথে বিভিন্ন পেরিফেরাল ডিভাইস যেমন মাউস,কী-বোর্ড ইত্যাদি যুক্ত করে আপনার ডিভাইসটি নিয়ন্ত্রন করতে পারবেন। তবে এক্ষেত্রে উল্লেখ্য যে মাল্টিপল বাটন বা ফাংশন সমৃদ্ধ মাউস গুলো কাজ নাও করতে পারে। এছাড়া OTG এর মাধ্যমে আপনি আপনার ডিভাইসের সাথে বিভিন্ন স্টোরেজ ডিভাইস,যেমন- হার্ডড্রাইভ,পেনড্রাইভ ইত্যাদি যুক্ত করতে পারবেন। শুধু তাই নয় আপনার ডিভাইসে একটি ফাইল ম্যানেজার ব্যবহার করে এই স্টোরেজ ডিভাইস গুলো থেকে ডাটা আদান প্রদান করতে পারবেন। সেই সাথে এই এক্সটারনাল স্টোরেজ ডিভাইস গুলো থেকে গান বা মুভি প্লে করতে পারবেন


    from Know Sharing your knowledge http://bit.ly/2J7ZCfh
    via Uniquebdtrick
    Copyright © MR Laboratory
    Newer post Older post

    RELATED ARTICLES